Sunday, 19 July 2020

কিভাবে জেব ক্যাশ দিয়ে পেমেন্ট করবেন ? How to pay by jebcash




Top 6 best keyboards for android
Top 6 best keyboards for android

বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে অনলাইনে ক্রয় বিক্রয় করটা অনেক রিস্কের। অনেক সময় বিক্রেতা প্রতারণা করে আবার অনেক সময় ক্রেতা প্রতারণা করে। অনলাইনে প্রতারণা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নাই। এই প্রতারণা যে কেবল আমাদের দেশীয় কোম্পানি গুলিই করে থাকে সেটা নয়। এই প্রতারণা বিদেশী ওয়েবসাইট গুলিতেও হয়ে থাকে। যেমন আলিবাবা বা ইন্ডিয়া মার্ট । অনলাইনে এই প্রতারণা থেকে বাঁচতে ই বাই বিশেষ এক ধরনের পেমেন্ট সিস্টেম তৈরি করেছে। যেখানে ক্রেতা বিক্রেতা সবাই সুরক্ষিত ।

সহজ ভাষায় জেব ক্যাশ
এটা একরকম এল সি সিস্টেম। আপনি যে পণ্য ক্রয় করবেন তার সমপরিমান টাকা জেব ক্যাশে জমা করবেন। সেলার তার একাউন্ট থেকে দেখতে পারবে যে তার একাউন্টে টাকা জমা হয়েছে কিন্তু সে টাকা জেব ক্যাশ থেকে উত্তোলন করতে পারবেনা। আপনি যখন বলবেন যে আপনি পণ্য বুঝে পেয়েছেন, তখন আমরা সাপ্লায়ারকে তার পণ্যের মূল্য পরিশোধ করবো। সাপ্লায়ার থেকে কোন কমিশন রাখা হবেনা। তার সমপরিমাণ টাকা তাকে দিয়ে দেয়া হবে।
 
কেন জেব ক্যাশ ব্যবহার করবেন ? 
আমরা বিক্রেতা থেকে ০% কমিশন বা বাৎসরিক চার্জ নেই না। কিন্তু আমাদের এই বিষয়টা নিশ্চিত করতে হবে যে ক্রেতা যেন প্রতারিত না হয়। সেজন্য এই সহজ পেমেন্ট সিস্টেমটা তৈরি করেছি। ক্রেতা বিক্রেতা সবাই সুরক্ষিত থাকবে।

কিভাবে কাজ করবেন এই পেমেন্ট সিস্টেম নিয়ে
প্রথমে ক্রেতা বিক্রতাকে কোন পণ্যের ব্যাপারে ই বাই তে ম্যাসেজ করে দাম দর ঠিক করবেন। দর দাম ঠিক হলে বিক্রেতার কাছে পণ্য বিক্রির একটি ফর্ম ওপেন হবে  যেখানে অটো একটা ইনভয়েস নাম্বার #EIB-7 সাথে ইনভয়েস ডেট 2020-03-29 সময় 1:46 AM দেখাবে এবং অর্ডারটির অবস্থা Pending দেখানো হবে।  এবার সাপ্লায়ার তার ক্রেতার সাথে নির্ধারণ করা পণ্যের পরিমান এবং দাম লেখে অর্ডার কনফার্ম করবেন।

এবার ক্রেতা তার অর্ডারটি মেসেজ বক্স থেকে কনফার্ম করার জন্য Pey Now বাটনে ক্লিক করবেন। যদি ক্রেতার বালান্সে টাকা থাকে তবে পেমেন্ট কনফার্ম হয়ে যাবে।
বালান্সে টাকা না থাকলে jebcash গিয়ে বিকাশ অথবা ব্যাংক থেকে টাকা রিচার্জ করে নিতে হবে। টাকা রিচার্জ করা খুব সহজ কাজ। আমাদের দেয়া মোবাইল নাম্বার বা ব্যাংক একাউন্টে টাকা জমা দিয়ে রিচার্জ করুন বাটনে ক্লিক করে জমা দেয়া টাকার সবগুলি তথ্য পুরন করে দিন।
আমরা ম্যানুয়ালি সব চেক করে আপানার একাউন্টে টাকা অ্যাড করে দিবো।

ক্রেতা পেমেন্ট করার সাথে সাথে কিন্তু বিক্রেতার একাউন্টে পণ্যের টাকা জমা হবেনা। পেমেন্ট হয়ে গেলে বিক্রেতা দেখতে পাবে যে আপনি তাকে পেমেন্ট করেছেন। কিন্তু বিক্রেতার আকাউন্ট ফাঁকা।  আপনি যখন পণ্য বুঝে পাবেন তখন কনফার্ম বাটনে ক্লিক করলেই বিক্রেতা আপনার টাকা তার একাউন্টে পেয়ে যাবে।
তবে আপনি চাইলে লেনদেন টি ইনভয়েস আকারে প্রিন্ট করে রাখতে পারবেন। যাতে পরবর্তী কোন সমস্যায় প্রমান হিসাবে রাখতে পারেন। অথবা আপনার পণ্যের হিসাব রাখতে সুভিধা হবে।

যদি ক্রেতা পণ্য সঠিক ভাবে না পায় তবে অ্যাডমিন প্যানেলে অভিযোগ করলে ক্রেতা তার টাকা রিফান্ড পাবে।  সে ক্ষেত্রে আপনাকে পণ্য খারাফ, সঠিক পণ্য পান নাই অথবা যে কোন সমস্যা পণ্য হাতে পাওয়ার ১ কর্ম দিবসের মধ্যে আমাদেরকে এবং সেলারকে অবহিত করতে হবে। তবে ভুয়া কোন অভিযোগ করলে সেটা খতিয়ে দেখা হবে।

jebcash পেমেন্ট সিস্টেম টা ঠিক এল সি করার মত । ক্রেতা বিক্রেতা সবাই এখানে নিরাপদ।
আলিবাবা, ইন্ডিয়া মার্ট এই পেমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে ক্রেতাদের সুরক্ষা দিয়ে থাকে। তাই আপনাদের নিরাপত্তার জন্য jebcash ব্যবহার করুন। 

সেলার যখন তার jebcash এ জমা টাকা উঠাতে চাইবেন তখন কেবল Payments বাটনে ক্লিক করে টাকা গ্রহন মাধ্যমের সকল তথ্য দিয়ে দিবেন।
ইসলামি ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া বা বিকাশ হলে ১ দিনেই পেয়ে যাবেন। অন্য ব্যাংক হলে সময় লাগতে পারে।
এই পেমেন্ট সিস্টেমে ক্রেতা বিক্রেতা সবাই নিরাপদ। তবে আপানদের ক্রয় বিক্রয়ের সকল কথা মেসেজ আমাদের ওয়েবসাইটের মেসেঞ্জারের মাধ্যমে করতে হবে। ওয়েবসাইটের বাইরে অন্য কোন মেসেঞ্জারে বা মোবাইলে কথা বলার স্ক্রিন শর্ট বা ভয়েস রেকর্ড টাকা বা পণ্য রিফান্ড করার প্রমান হিসাবে গ্রহন যোগ্য হবেনা। 

5 comments:

  1. আমার এক কেজির বোতল লাগবে ১০০ পিস
    হাফ কেজির লাগবে ১০০ পিস

    ReplyDelete
  2. ০১৭১১১৬০৬৬৩
    জানাবেন দয়া করে

    ReplyDelete
  3. জেবক্যাশ কি

    ReplyDelete
  4. অনেক সুন্দর সিস্টেম

    ReplyDelete